ঢাকাবুধবার , ২৯ নভেম্বর ২০২৩

ডিমলায় জমি নিয়ে বিরোধে পুত্রের হাতে পিতা খুন

দৈনিক প্রথম বাংলাদেশ
নভেম্বর ২৯, ২০২৩ ১:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

   
                       

ডিমলা, নীলফামারী প্রতিনিধি

যে পিতা ছাড়া ছেলের কোন বংশ পরিচয় মেলেনা,সেই ছেলের হাতে জীবন দিতে হলো হতভাগা পিতাকে।এই করুন দৃশ্যের ঘটনাটি ঘটেছে ২৮/১১/২০২৩ইং রোজ মঙ্গলবার দূপুরে নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার ৮ নং ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের উত্তর সোনাখুলি মিলন পাড়ায়।জানা যায় জমি জমার বিষয়কে কেন্দ্র করে নুর ইসলাম (৩৫)তার জন্মদাতা পিতা আঃ আজিজকে কোদাল দিয়ে কোপ দিয়ে নিজ হাতে খুন করে।
জানা যায়, আব্দুল আজিজের তিন ছেলে ও তিন মেয়ে।,পুত্রদের সহিত বনিবনা না হওয়ায় পিতা আব্দুল আজিজ তার কয়েক শতাংশ জমি মেয়েদের নামে দলিল করে দেন।সেই সূত্র ধরে দীর্ঘ দিন থেকে পুত্র নুর ইসলামসহ তার ভাইয়েরা তার পিতার উপর অমানবিক ও নিষ্ঠুর নির্যাতন করে আসতেছে ।আজিজের মেয়ের সন্তান রাজু ইসলাম বলেন,সোমবার সন্ধার সময় চাপানী বাজারে নানাকে ভুট্টা বীজ কিনে দিয়ে বাড়িতে চলে যাই।পরদিন মঙ্গলবার দুপুরে শুনতে পারি আমার নানা আঃ আজিজ ভুট্টা লাগাতে গিয়ে মামা নুর ইসলামের সাথে বাকবিতন্ডতায় এক পর্যায়ে নুর ইসলাম তার হাতে থাকা কোঁদাল দ্বারা কোপ দিলে নানা আঃ আজিজের মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে যখম হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুঠিয়ে পড়ে।এলাকাবাসী তাকে আহত অবস্থায় ডিমলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে রেফার করে রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ছেলের হাতে পিতা খুনের ঘটনাকে সমাজ ও এলাকাবাসী তিব্র নিন্দা ও অপরাধীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।
ডিমলা থানার তদন্ত অফিসার আব্দুর রহিম ও পুলিশ পরিদর্শক উৎপল রায় ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য লাশকে ময়নাতদন্তে মর্গে প্রেরন করে।