ঢাকামঙ্গলবার , ১৪ মার্চ ২০২৩

পুঠিয়ায় মেহেদি কাজী নিজ কক্ষে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

দৈনিক প্রথম বাংলাদেশ
মার্চ ১৪, ২০২৩ ৯:০৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

   
                       

উপজেলা (পুঠিয়া) প্রতিনিধি:

রাজশাহীর পুঠিয়ায় মেহেদী হাসান (৩৭) নামের তিন সন্তানের জনক আত্মহত্যা করেছে। নিজ শয়নকক্ষে তীরের সাথে গলায় প্যান্ট পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। মঙ্গলবার (১৪ মার্চ) দুপুর ১ টার দিকে পুঠিয়ার কাঁঠালবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটনা। তার বাবা মাওলানা মমিনুল ইসলাম বিড়ালদহ কামিল মাদরাসার শিক্ষক ছিলেন। মেহেদীর তিন স্ত্রী ও তিনটি সন্তান রয়েছে।

তার পারিবারিক সূত্র জানায়, গতকাল সোমবার বিষপানে মেহেদী আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। মঙ্গলবার সকাল আটটার দিকে তিনি গলায় প্যান্ট পেঁচিয়ে ঘরের তীরের সাথে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরে দুপুরে তার বাবা মসজিদে নামাজ পড়তে গেলে নিজ শয়নকক্ষে একই কায়দায় আত্মহত্যা করেন তিনি। তারা বাবা নামাজ পড়ে বাড়িতে ফিরে ঘরের তীরের সাথে তাকে গলায় প্যান্ট পেঁচিয়ে ঝুলে থাকতে দেখেন। প্রতিবেশিদের ডেকে মেহেদীকে ঝুলে থাকা অবস্থা থেকে নামিয়ে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এলাকার কাউন্সিলর জয়নাল আবেদীন জানান, মেহেদী মাদকসেবি ছিলেন। তার পরিবার যথেষ্ট চেষ্টা করেছে তাকে সুস্থ জীবন যাপনে ফেরাতে। ঘটনাস্হলে থানার তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুল বারী জানান, মেহেদী পেশায় একজন কাজী ছিল। পাশাপাশি তিনি মাদক সেবন করতেন। তিনি সুস্থ ছিলেন না। তার ময়না তদন্ত না করাতে পরিবারের লোকজন আমাদের অনুরোধ করেছেন।