ঢাকারবিবার , ১৮ ডিসেম্বর ২০২২

র‌্যাব পরিচয়ে ব্যবসায়ীকে অপরহরণ; হাতিয়ে নিলেন নগদ অর্থ ও স্বর্ণ

মাসুম বিল্লাহ
ডিসেম্বর ১৮, ২০২২ ৪:০৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!
   
                       

শেরপুর বগুড়া,
বগুড়ার শেরপুরে র‌্যাব পরিচয়ে ব্যবসায়ীকে অপরহরণের পর নগদ টাকা এবং এটিএম কার্ড দিয়ে টাকা উঠিয়ে নেয়ার পর রাস্তায় ফেলে গিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার (১৭ ডিসেম্বর) বিকেলে শেরপুর থানায় এ ঘটনায় মামলা দায়ের করেন আহসান হাবিব (৪০) নামের ওই ব্যবসায়ী। আহসান হাবিব উপজেলার ধনকুন্ডি গ্রামের মৃত জহুরুল ইসলামের ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১৪ ডিসেম্বর বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় উপজেলার ঘোগা ব্রীজ সংলগ্ন ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কে।

জানা গেছে, আহসান হাবিব গত বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় তার চান্দাইকোনা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে শেরপুর শহরের পৌছালে পিছন থেকে আসা সাদা প্রাইভেট তার মোটর সাইকেল আটকায়। এরপর চারজন দুর্বৃত্ত র‌্যাব এর পোশাক পরে, হাতে হ্যান্ডক্যাপ, পিস্তল, ক্যারেন্টের শক দেওয়ার তার সহ, তার কাছে গিয়ে নিজেদের র‌্যাব পরিচয় দিয়ে তাকে প্রাইভেট কারে তুলে ঢাকার দিকে রওনা দিয়ে চলে যায়। এরপর কথিত রাসেল নামের এক ব্যক্তি তার ব্যবহৃত বাজাজ বগুড়া হ ১৮- ৩৪৪৪ ১২৫ সিসির মোটর সাইকেলটি চালিয়ে কারের সাথে সাথে যায়। এরপর দুর্বৃত্তরা তার বিকাশের পিন কোড নিয়ে তার বিকাশ নম্বর ০১৭৩১- ৩৩০৯৭০ থেকে পার্সোনাল বিকাশ নম্বর ০১৮৩৫-৮১৫৬৭২ এ ১৩ হাজার ৯০০ টাকা সেন্ট মানি করে নেয়। এছাড়া তার হাতে থাকা একটি স্বর্নের আংটি এবং কাছে থাকা নগদ ৪ হাজার হাতিয়ে নেয়।

এরপর তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার ডাচ্-বাংলা ব্যাংক একাউন্ট নং ৭০১৭৩১১৩১২৩২৬ এর এটিএম কার্ড থেকে ঐ রাতেই ১ লক্ষ টাকা এবং পরদিন ৮৫ হাজার টাকা উত্তোলন করে। এরপর ঐ দিন দুর্বৃত্তরা তাকে গাজীপুর চান্দুরা চৌরাস্তা ব্রীজের দক্ষিণ পাশে তাকে মোবাইল ফোন সহ নামিয়ে দেয় এবং তার মোটর সাইকেলটি সেখানে ফেলে যায়। পরে আহসান হাবিব মোটরসাইকেল নিয়ে বাড়ী ফেরেন। এরপর শনিবার শেরপুর থানায় এসে একটি মামলা দায়ের করেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খোন্দকার আতাউর রহমান বলেন, মামলা হয়েছে। তদন্ত চলছে।