ঢাকামঙ্গলবার , ২ এপ্রিল ২০২৪

নওগাঁয় প্রতি কাউন খড়েড় দাম ৫ হাজার হওয়ায় খামারীরা বিপাকে

উজ্জ্বল কুমার সরকার
এপ্রিল ২, ২০২৪ ৪:৪০ অপরাহ্ণ
Link Copied!
   
                       

উজ্জ্বল কুমার সরকারঃ

ধানের এলাকা হিসেবে পরিচিত নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলা। রোপা আমন মৌসুমে এখানকার কৃষকেরা ধানের দাম ভালোই পেয়েছেন। এখন বিক্রি করছেন ধানের খড়। গত বছরের তুলনায় এবার খড়ের দামও বেশি। বিভিন্ন জেলা থেকে ব্যবসায়ীরা প্রতিদিনই ভ্যান, ট্রাক আর ভটভটিতে করে খড় কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। খড় থেকে তাই ভালো লাভের আশাই করছেন কৃষক।উপজেলা কৃষি কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এ বছর মৌসুমে উপজেলায় ৩০ হাজার ৪২০ হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষ হয়েছে। ১ হেক্টরে ৭ দশমিক ৪৭ বিঘা হিসাব করলে ধান চাষ হয়েছে ২ লাখ ২৭ হাজার ২৩৭ বিঘা জমিতে। ১ বিঘায় গড়ে ১ কাউন (১২৮০ আঁটি) খড় উৎপাদন হয়। ১ কাউন খড়ের বর্তমান বাজারদর ৪ হাজার থেকে ৪ হাজার ৫০০ টাকা।সে হিসাবে উপজেলার ২ লাখ ২৭ হাজার ২৩৭ বিঘা জমিতে উৎপাদিত খড়ের গড় বাজারমূল্য ৯০ কোটি ৮৯ লাখ ৪৯ হাজার ৬০০ টাকা। তবে কৃষকেরা আশা করছেন, কোরবানির ঈদের আগে দাম বাড়বে। সেক্ষেত্রে ঈদ পর্যন্ত ১০০ কোটি টাকার খড় বিক্রি হতে পারে।গত কয়েক দিন উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে খড় বেচাকেনার চিত্র চোখে পড়ে। গাবতলী বাজারের ব্রিজপাড় এলাকায় একসঙ্গে পাঁচটি গাড়িতে খড় সাজাতে দেখা যায়। নাটোরের খড় ব্যবসায়ী আব্দুল জব্বার বলেন, ‘আমার ভটভটিতে ১২ হাজার ৮০০ খড়ের আঁটি (১০ কাউন) রয়েছে। স্থানীয় ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে এই খড় কিনেছি। প্রতি কাউনের দাম পড়েছে ৪ হাজার ৬০০ টাকা। সে হিসাবে এক আঁটি খড়ের দাম পড়েছে ৪ টাকা ৫০ পয়সা। খড় নিয়ে গিয়ে অন্য এলাকায় বিক্রি করব।