ঢাকাশনিবার , ৭ জানুয়ারি ২০২৩

এডি সায়েন্টিফিক ইনডেক্স র‍্যাঙ্কে কুবির উপাচার্য ট্রেজারারসহ ৬১

দৈনিক প্রথম বাংলাদেশ
জানুয়ারি ৭, ২০২৩ ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!
   
                       

কুবি প্রতিনিধিঃ

অ্যালপার ডগার (এডি) সায়েন্টিফিক ইনডেক্স র‍্যাঙ্কিং-২০২৩ এ বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় স্থান পেয়েছেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও ট্রেজারার সহ ৬১ জন। এডি সায়েন্টিফিক ইনডেক্সের ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, বিশ্বের ২১৬ টি দেশের ১৯ হাজার ৫২৫টি প্রতিষ্ঠানের ১২ লাখ ৩৩ হাজার ৫২৩ জন গবেষক এ তালিকায় স্থান পেয়েছেন। আন্তর্জাতিক মানের এই সুচকে ১১ ক্যাটাগরিতে গবেষকদের ভাগ করা হয়েছে।

এডি সায়েন্টিফিক ইনডেক্স র‍্যাংকিং-২০২৩ এর তালিকায় বাংলাদেশের সরকারি-বেসরকারি ১৬৮টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ হাজার ৩৩৫ জন গবেষকের মধ্যে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের আছেন ৬১ জন শিক্ষক। প্রকাশিত তালিকায় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের মধ্যে ১ম ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের মধ্যে ১ম স্থানে রয়েছেন একাউন্টিং এন্ড সিস্টেমস বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন। তার মোট সাইটেশন সংখ্যা ৬২৮টি। বাংলাদেশের গবেষকদের মধ্যে তার স্থান ১৪৯১ তম। বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ থেকে এ তালিকায় শীর্ষ দশে আছেন একই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. তোফায়েল হোসেন মজুমদার এবং সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জি এম আজমল আলী কাউছার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের মধ্যে গবেষকদের এ তালিকায় শীর্ষ দশে আছেন অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক স্বপন চন্দ্র মজুমদার। বিজ্ঞান অনুষদ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরা দশ গবেষকের মধ্যে জায়গা করে নিয়েছেন গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. গোলাম মর্তুজা তালুকদার, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. কামাল হোসাইন ও মো. খলিলুর রহমান। প্রকৌশল অনুষদের সেরা গবেষক হিসেবে স্থান পেয়েছেন কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক পার্থ চক্রবর্তী ও মাহমুদুল হাছান। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের তালিকায় প্রথমে থাকা একাউন্টিং এন্ড সিস্টেমস বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন বলেন, গবেষক হিসেবে প্রথম নাম এসেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সবার মধ্যে প্রথম আছি সেক্ষেত্রে ভালো অনুভূতি কাজ করছে। এটি অনেক উৎসাহব্যাঞ্জক। এটা একধরনের স্বীকৃতি। কাজের স্বীকৃতি ও সাইটেশনের রেকর্ড৷ আমরা যারা রিসার্চ করি তাদের জন্য ভবিষ্যতে কাজ করার ক্ষেত্রে ইতিবাচক বিষয় হিসেবে কাজ করবে।

এছাড়াও তালিকায় সাইটেশনের দিক থেকে প্রথম স্থানে আছেন ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী ওমর সিদ্দিকী। তার সাইটেশন সংখ্যা ৮৪৫। দ্বিতীয় স্থানে আছেন একাউন্টিং এন্ড সিস্টেমস বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন। তার সাইটেশন সংখ্যা ৬২৮। উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন বলেন, এডি সায়েন্টিফিক ইনডেক্সে শিক্ষকদের প্রোফাইলের ক্রমাগত যুক্ত হওয়া অবশ্যই কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য একটি বড় অর্জন। প্রায় এক বছর আগে যখন আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্বের দায়িত্ব নিই, তখন মাত্র কয়েকজন শিক্ষকের এডি ইনডেক্সে নাম ছিল। এর মধ্যে তা প্রায় দশগুণ বেড়েছে। তিনি আরো বলেন, আমি অন্যান্য শিক্ষকদেরও গবেষণায় উৎসাহিত করবো এবং তা যাতে উচ্চ মানের জার্নালে প্রকাশ করে। বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি টেকসই গবেষণা সংস্কৃতি তৈরি করতে ভালো গবেষণার করা ও উচ্চমানের জার্নাল প্রকাশে আমাদের শিক্ষক এবং ছাত্রদের সহায়তা করবো। এই বছর এই তালিকায় নতুন করে প্রায় ৩৩ জন গবেষক যুক্ত হয়েছেন। এর আগে গত বছর এই র‍্যাংকিংয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছিলেন ২৮ জন গবেষক। উল্লেখ্য, অ্যালপার ডগার সায়েন্টিফিক ইনডেক্স গবেষকদের গুগল স্কলার রিসার্চ প্রোফাইল ও বিগত ৫ বছরের গবেষণার এইচ ইনডেক্স, আইটেন ইনডেক্স এবং সাইটেশন স্কোরের ভিত্তিতে র‍্যাঙ্কিংটি প্রকাশ করা হয়েছে।