ঢাকারবিবার , ২৯ জানুয়ারি ২০২৩

লোহাগড়ায় মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ যুবকের লাশ ৩ দিন পরে উদ্ধার

মোঃ আজিজুর বিশ্বাস
জানুয়ারি ২৯, ২০২৩ ৮:২৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!
   
                       

মোঃ আজিজুর বিশ্বাস,স্টাফ রিপোর্টার

নড়াইলের লোহাগড়ায় মধুমতি নদীতে ডুব দিয়ে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজের ৩ দিন পর ঘটনাস্থলে তার লাশ ভাসতে দেখে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। রোববার (২৯ জানুয়ারি) বিকেলে মুসা বিশ্বাস (৩২) এর মৃতদেহ উদ্ধার করে স্থানীয়রা। সে উপজেলার ঘাঘা মধ্যপাড়া গ্রামের নবীর বিশ্বাসের ছেলে। লোহাগড়া উপজেলার কোটাখোল ইউনিয়নের ইউপি সদস্য শাহ-আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। শাহ-আলম বলেন,রোববার বিকেল ৪ টার দিকে লোহাগড়া উপজেলার ঘাঘা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে মধুমতি নদিতে যেখানে মুসা ডুব দিয়ে নিখোঁজ হয়। সেখানে স্থানীয় লোকজন লাশ ভেসে উঠতে দেখে। পরে ট্রলার নিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে। পরে খবর পেয়ে লাশ নৌ-পুলিশ তাদের হেফাজতে নেয়।

এ বিষয়ে নড়াইল ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো.মাহাবুব আলম বলেন,বিকেল ৪ টার দিকে স্থানীয়রা নিখোঁজ মুসা বিশ্বাসের লাশ উদ্ধার করে। পরে লাশ নৌ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে লোহাগড়া উপজেলার ঘাঘা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে মধুমতি নদীতে ওই গ্রামের মো.নবীর বিশ্বাসের ছেলে মো. মুসা বিশ্বাস ও একই গ্রামের স্বাধীন মোল্যার ছেলে মোহাম্মদ নাদিম মোল্যা দুজনে নদীতে ডুব দিয়ে মাছ ধরতে যায়। পরে নাদিম মাছ ধরে উপরে উঠে আসলেও মুসা আর ফিরে আসেনি। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সত্যতা যাচাই করে খুলনা ডুবরি দলকে খবর দেয়। খুলনা থেকে হুমায়ুন কবিরের নেতৃত্বে একদল ডুবরি ওইদিন সন্ধ্যায় ঘন্টাব্যাপি চেষ্টা করে সফল না হতে পেরে উদ্ধার অভিযান স্থগিত করেন। পরদিন শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত উদ্ধার অভিযানে চালায় খুলনা থেকে আসা ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। তবে তার কোন সন্ধান না পাওয়ায় ওইদিন উদ্ধার অভিযান শেষ হয়।