ঢাকারবিবার , ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

নওগাঁর কালুশহরে কলহের জেরধরে সালমা খাতুন নামে এক গৃহবধূ কে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ!!!!

উজ্জ্বল কুমার সরকার
ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৩ ৯:৪৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!
                       

নওগাঁ থেকেঃ

নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর পারিবারিক কলহের জের ধরে সালমা খাতুন (৪০) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে।
নিহত গৃহবধূ মহাদেবপুর উপজেলার এনায়েতপুর ইউনিয়নের কালুশহর মন্ডলপাড়া গ্রামের আবু তালেবের দ্বিতীয় স্ত্রী।
১০ ফেব্রুয়ারি,শুক্রবার দিবাগত রাতে থানা পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। রাত ৮টায় এ রিপোর্ট লেখার সময় পুলিশ ঘটনাস্থলে তদন্ত করছিলেন।
থানা পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, আবু তালেবের প্রথম পক্ষের ছেলে কাজল (১৮) প্রতিবেসী প্রবাসী হারুনের স্ত্রী সাদিয়া খাতুনের সাথে পরকিয়ায় জড়িয়ে পড়েন। বিষয়টি জানতে পেরে বৃহস্পতিবার কাজলের সৎ মা ছালমা খাতুন সাদিয়া খাতুন ও তার পরিবারের সদস্যদের কাজলের সাথে সম্পর্ক রাখতে নিষেধ করেন। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। এরই জের ধরে শুক্রবার দুপুরেও সাদিয়া, তার শাশুড়ি ফরিদা বেগম, ভাসুর ফারুক হোসেন, কালুশহর শাহ পাড়ার ফারুক শাহের স্ত্রী বৃষ্টি খাতুন, নতুন পাড়ার জাইদুল ইসলামের স্ত্রী বর্ষা খাতুন, জিল্লুর রহমানের স্ত্রী আছমা খাতুনসহ আরো অনেকে সালমা খাতুনের উপর চড়াও হয়। তারা ছালমা খাতুনকে এলোপাথারী মারপিট করে, মাথার চুল ছিড়ে নেয় ও ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করে।
মারাত্মক আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে বিকেলে তার মৃত্যু হয়। মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোজাফফর হোসেন জানান, এব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

উজ্জ্বল কুমার সরকার ফোন০১৭২৬-৩৭৬২৮২ তারিখ ১১/৩/২৩
নওগাঁ।